Terror in Haroya, Sason & Minakhan of South 24-Parganas

        After the Loksabha Poll in 2009, the TMC Jahllads (Butchers) let loose a reign of terror in Haroya, Sason and Minakhan area of the South 24 Parganas district, where elected Chiefs of the village and Block level Panchayats are not being allowed to work. Not only that, they have been beaten and driven out of their homes along with their families. After that whatever little they left behind were burnt to ashes. Panchayat Pradhan Dinabandhu Mondal was implicated in  false charge of a murder case from which he was subsequently acquitted by a verdict of not guilty. On this murder case, TMC leader Mrityunjay Mondal & nine others were found guilty by the CID. But they are still at large.

haroya

Mr. Gautam Deb, M-I-C, Housing & PHE addressing a big rally at terror-ridden Brahmanchak, near Haroya, S-24-Parganas.

        লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার শাসন, হাড়োয়া ও মিনাখাঁ অঞ্চলে ব্যাপক সন্ত্রাস নামিয়ে আনে তৃণমূল। শাসন গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতিতে সি পি আই (এম) জয়ী হওয়ার পরেও পঞ্চায়েত প্রধান ও পঞ্চায়েত সমিতির প্রধান ঘরছাড়া হয়েছেন। বাড়িঘর ভাঙচুর, লুট হয়েছে। একইভাবে হাড়োয়ার সোনাপুকুর-শঙ্করপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে জেতার পরও পঞ্চায়েত প্রধান দীনবন্ধু মণ্ডলকে তাঁর পরিবারসহ বিতাড়িত করা হয়েছে গ্রাম থেকে। তাঁর বাড়িঘরও ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূলের দুর্বৃত্ত বাহিনী। দীনবন্ধু যাতে আর কোনোদিন ব্রাহ্মণচকে ফিরতে না পারেন, তারজন্য তাঁর নামে জোড়া খুনের মিথ্যা মামলাও করেছিল তৃণমূল। তাঁর অনুপস্থিতিতে গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নয়ন তহবিলের টাকাও লুট করেছে তৃণমূল বাহিনী।
   

        জোড়া খুনের মামলায় দীনবন্ধু মণ্ডল বেকসুর মুক্তি পেলেও দোষী সাব্যস্ত হয়েছে তৃণমূলের হাড়োয়া ব্লক সভাপতি মৃত্যুঞ্জয় মণ্ডলসহ ৯ তৃণমূলী জল্লাদ। কিন্তু পুলিস এদের গ্রেপ্তার করতে পারছে না।

        এদিন (১৯/০২/২০১১) হাড়োয়ার ব্রাহ্মণচক ময়দানে সন্ত্রাস বিরোধী বিশাল সমাবেশে গৌতম দেব বলেন, সি আই ডি তদন্তে প্রমাণিত অপরাধীকে পুলিস গ্রেপ্তার করতে পারছে না, অদ্ভুত ব্যাপার। অপরাধের সঙ্গে যুক্তকে অবশ্যই গ্রেপ্তার করতে হবে। তারা জেলে থাকবে। কেন বাইরে ঘুরে বেড়াবে? এই পঞ্চায়েতে সি পি আই (এম) জিতেছে। লোকসভায় আমরা হারলেও এই বুথ থেকে ৪০০ ভোটে জিতেছে। তবুও দীর্ঘ ২ বছর পঞ্চায়েত প্রধান ঘরছাড়া। হচ্ছেটা কী? এই মঞ্চে যে মহিলা বসে আছেন, তিনি স্বামীকে হারিয়েছেন। ২ বছরের কন্যা তার বাবাকে হারিয়েছে। পাশে বসে আছেন মা, যিনি ‍‌ তাঁর সন্তানকে হারিয়েছেন। এমনই কি চলতে থাকবে? দেব বলেন, রাজ্যজুড়েই এক অস্থির পরিস্থিতি তৈরি করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে সজাগ থেকে প্রতিটি পদক্ষেপ নিতে হবে।

Advertisements

Tags: , , , ,

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s


%d bloggers like this: